সাইটে অর্গানিক ট্রাফিক বাড়ানোর জন্য ৫টি সোশ্যাল মিডিয়া হ্যাক

ফেসবুক, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম, লিঙ্কডইন  এই সোশ্যাল মিডিয়াগুলো থেকে আপনি আপনার সাইটে শত শত অর্গানিক ট্রাফিক পেতে পারেন। কিন্তু অধিকাংশ মানুষই সোশ্যাল মিডিয়াগুলোকে পে করে সাইটে ট্রাফিক আনে। স্বাগতম আমার আর্টিকেলে, আজ আমি আলোচনা করব কীভাবে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে সাইটে অর্গানিক ট্রাফিক বাড়াবেন।   সোশ্যাল মিডিয়া হ্যাক #১ ইন্সটাগ্রামের মাধ্যমে আপনার ব্লগ পোস্ট প্রমোট করবেন। অনেকেই ইন্সটাগ্রামে প্রোডাক্ট প্রমোট করেন, কিন্তু ব্লগ পোস্ট প্রমোট করেন গুটি কয়েক মানুষ। আপনি যদি শিক্ষামূলক/তথ্যমূলক কোন ইমেজ ইন্সটাগ্রামে আপলোড করে এর লিংকে ক্লিক করত বলেন, তাহলে অনেকেই ক্লিক করবে। কিন্তু আপনি যদি আপনার প্রোফাইলে…

যেভাবে ফেসবুক ভিডিওতে দর্শকদের সক্রিয়তা বাড়াতে হয়।

ফেসবুকে কোন লেখা পোস্ট করার চেয়ে ভিডিও পোস্ট করলে অনেক জনপ্রিয়তা পাওয়া যায়। তবে অবশ্যই ভিডিওটি তথ্যবহুল হতে হবে। আজ আলোচনা করব কীভাবে ফেসবুকের জন্য ভিডিও বানালে, ভিডিওতে দর্শকদের সক্রিয়তা বাড়বে। টিপ ১: ভিডিওর বিষয় অনুযায়ী আবেগ দেয়া। দর্শকদের ভিডিওতে আগ্রহী করা, হাস্যজ্জল ও প্রাণোচ্ছলভাবে কন্টেন্ট বর্ণনা করা। এমন যেন না হয় যে, দর্শকের বিরক্ত, অনাগ্রহ, একঘেয়েমি লাগে। একটু ভেবে দেখুন কোন ভিডিওতে আপনি গোমড়া মুখে বিরক্তির সাথে ভিডিওর কন্টেন্ট বর্ণনা করছেন। তাহলে বলুন তো, আপনার ভিডিওতে দর্শকরা কী রিঅ্যাক্ট দিবে? অর্থাৎ দর্শকের যেন মনে হয় বক্তা তাকে উদ্দেশ্য করেই…

যে ৩টি ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন্স ওয়েবসাইটকে ভাইরাল করবে।

আপনার ওয়ার্ডপ্রেস সাইটে কন্টেন্ট লিখছেন, ব্যাকলিংক তৈরি করছেন, এমনকি সোশ্যাল শেয়ারও করছেন; কিন্তু আপনার সাইটটি ভাইরাল হচ্ছে না বা জনপ্রিয়তা পাচ্ছে না। এমতাবস্থায় আপনার কী করা উচিত? সবাইকে স্বাগতম আমার আজকের আর্টিকেলে, আজ আমি ওয়ার্ডপ্রেসের ৩টি প্লাগইন্সের সাথে আপনাদের পরিচয় করিয়ে দিব, যেগুলো আপনার ওয়েবসাইটকে ভাইরাল বা জনপ্রিয় করতে সাহায্য করবে। ১। Click to Tweet: প্রথমেই আমি Click to Tweet প্লাগইনের কথা বলব। এটা খুব সহজেই ব্যবহার করা যায়। আপনারা অনেকেই হয়ত ইতপূর্বেই এই প্লাগইনের কথা শুনেছেন। কিন্তু কেন যেন অধিকাংশ মানুষই এই প্লাগইনটি ব্যবহার করে না। যদি টুইটারে আপনার…

ব্যাকলিংক কী? কীভাবে ব্যাকলিংক কাজ করে?

গুগল কীভাবে নির্ধারণ করে কোন ওয়েবসাইট #১, কোনটি #২ বা #৩? অবশ্যই এসইও দিয়ে করে। কিন্তু আরও বিশদভাবে চিন্তা করলে কোনটির কথা মাথায় আসে? ‘ব্যাকলিংক’- আমি আগেও আমার কোন এক পোস্টে এটা বলেছি। আমার আজকের লেখায় সবাইকে স্বাগতম, আজ আমি ব্যাকলিংক কী এবং কীভাবে কাজ করে? তা নিয়ে আলোচনা করব। একটা ওয়েবসাইটকে র‌্যাংক করাতে গুগলের ২০০+ র‌্যাংকিং ফ্যাক্টর আছে। র‌্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে, ব্যাকলিংককে গুগল সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেয়। ব্যাকলিংক কী? যখন কেউ তাদের ওয়েবসাইট থেকে আপনার ওয়েবসাইটে আসার জন্য কোন লিংক তৈরি করে, তখন ঐ লিংককে ব্যাকলিংক বলে। যত বেশি ওয়েবসাইট…

এসইও হ্যাকস: বিগিনার থেকে এক্সপার্ট – পর্ব ০২

“এসইও হ্যাকস: বিগিনার থেকে এক্সপার্ট” এর দ্বিতীয় পর্বে আপনাকে স্বাগতম। এই আর্টিকেলে এসইও’র আরও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় শেয়ার করব। প্রথম পর্ব পড়তে পারেন এখানে – এসইও হ্যাকস: বিগিনার থেকে এক্সপার্ট – পর্ব ০১ ৫। Title Tag Modifiers ব্যবহার করা: বিশ্বাস করুন আর নাই করুন, Search Engine Traffic এর বেশির ভাগই আসে Long Tail এবং Specific Keywords এর জন্য। উদাহরণস্বরূপ, কেউ যদি “ব্যাকপ্যাক” খুঁজতে চায় সে হয়ত এভাবে “BEST LEATHER BACKPACKS MEDIUM SIZE FREE SHIPPING” সার্চ করবে। আমরা সবাই জানি যে, এরকম অগোছালো কীওয়ার্ড দিয়ে Search Engine কখনোই র‌্যাংকিং দিবে…

এসইও হ্যাকস: বিগিনার থেকে এক্সপার্ট – পর্ব ০১

এসইও অনেক বড় একটি বিষয়। এর শেখার কোন শেষ নেই। এসইও করার মূল লক্ষ্যই গুগলে র‌্যাংক করা। এসইও’র বেশ কিছু বিষয় আছে যেগুলো সবসময়ই র‌্যাংকিংয়ের কাজে লাগে। বিগিনাররা এসইও করার ক্ষেত্রে, অনেক সময়ই এই বিষয়গুলো ভুলে যায়। আমার এই পোস্টে স্বাগতম আপনাকে, আজকে এসইও’র গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করব, যেগুলো গুগল র‌্যাংকিংয়ে অনেক বড় ভূমিকা পালন করে। ইনশা-আল্লাহ পোস্টটি কয়েকটি ছোট ছোট পর্বে ভাগ করে পাবলিশ করব। চলুন শুরু করি… ১। Short URL: বিগিনারদের অনেকগুলো ভুলের মধ্যে একটি হচ্ছে “Long URL” ব্যবহার করা। এই ভুলটি আমিও করতাম। র‌্যাংকিংয়ের জন্য গুগল “Short…

ইউনিক লিংক বিল্ডিং: ব্যাকলিংক কৌশল (গুগল র‌্যাংকিং)

moz.com তাদের একটি গবেষণায় এসইও এক্সপার্টদের কাছে গুগল র‌্যাংকিংয়ের জন্য কোনটি সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন তা জানতে চায়। মজার বিষয় হচ্ছে সব এক্সপার্টই জানায় যে, গুগল র‌্যাংকিংয়ের ক্ষেত্রে প্রথম ফ্যাক্টর হচ্ছে লিংক বিল্ডিং করা। লিংক বিল্ডিং করা অনেক কঠিন একটি কাজ। নিচের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করে সহজেই লিংক বিল্ডিং করা সম্ভব। ১। ইনফো-গ্রাফিক তৈরি করা: ইনফো-গ্রাফিক তৈরি করতে আপনার অনেক ডেটার প্রয়োজন হবে। এই ডেটা পাবেন কোথায়? Buzzsumo তে আপনি অনেক ডেটা পাবেন। প্রথমে buzzsumo.com-এ গিয়ে আপনার ইন্ডাস্ট্রি রিলেটেড কিওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করতে হবে। buzzsumo আপনাকে সোশ্যাল শেয়ারের ভিত্তিতে অনেক আর্টিকেল দেখাবে।…

যেভাবে গুগলে র‌্যাংকিং করার জন্য সঠিক কীওয়ার্ড খুঁজবেন: কীওয়ার্ড রিসার্চ টুলস

যেকোন কীওয়ার্ড দিয়েই গুগলে র‌্যাংক করা সম্ভব। অনলাইন মার্কেটিংয়ে র‌্যাংকিংয়ে ওপরের দিকে থাকলে ভালো আর্নিং হয়। এক্ষেত্রে কীওয়ার্ড সবচেয়ে বড় ফ্যাক্টর। কেননা ভুল কীওয়ার্ড দিয়ে র‌্যাংক করলে আর্নিং শূণ্যতেও নেমে যেতে পারে। ক্রমাগত এরকম হলে, আপনার অনলাইন ক্যারিয়ার শেষ হয়ে যেতে পারে। বেশ কিছু টুল দিয়ে র‌্যাংকিংয়ের জন্য সঠিক কীওয়ার্ড বের করা যায়। ১। Competitor এর র‌্যাংককৃত কীওয়ার্ড খুঁজে বের করা:  র‌্যাংকিংয়ে সবচেয়ে ওপরে থাকা আপনার Competitor এর URL এই SEMRush টুল দিয়ে বিশ্লেষণ করতে হবে। SEMRush আপনাকে দেখাবে আপনার Competitor কোন পেইজে বেশি ট্রাফিক পাচ্ছে। আপনার Competitor এর কার্যক্রম…

এসইও-তে লিংক বিল্ডিং করার সহজ উপায়

গুগল র‌্যাংকিংয়ের গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টরগুলোর মধ্যে লিংক অন্যতম। ওয়েবসাইটে লিংক থাকলে সহজেই র‌্যাংকিংয়ে উন্নতি করা যায়, কিন্তু যদি না থাকে তাহলে র‌্যাংকিং করা অনেক কঠিন। আর লিংক বিল্ডিং করতে অনেক সময় লাগে বিধায় অনেকেই এতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলে। অটোমেটিক লিংক বিল্ডিং করে এসইও-তে র‌্যাংকিংয়ে উন্নতি করা যায়। যদি আপনি লিংক বিল্ডিংয়ের কথা ভাবেন, তাহলে এর সবচেয়ে কঠিন কাজ হচ্ছে আউটরিচ এবং এটিই লিংক বিল্ডিংয়ের ম্যানুয়াল কাজ। আপনাকে সাইটগুলো খুঁজে বের করতে হবে এবং আপনার সাইটে একটি লিংক দেয়ার জন্য তাদের বোঝাতে হবে। আর এই কাজটি কীভাবে করতে হয় সেটিই আপনাদের সাথে…

সহজ ৩টি কৌশলে সাইটে ট্রাফিক আনুন, নতুন কন্টেন্ট না লিখেই।

আপনার ব্লগ সাইটে অনেক কন্টেন্ট আছে, কিন্তু কেউ তা পড়ছে না। এখন আপনি কী করবেন? নতুন আর্টিকেল লিখবেন? আজ শেয়ার করব নতুন আর্টিকেল না লিখে অথবা লিংক বিল্ডিং না করে কীভাবে আরও বেশি ট্রাফিক পাবেন। কৌশল ১: প্রথমেই বলব আপনার টাইটেল ট্যাগ ঠিক করুন। গুগল সার্চ কনসোলে লগইন করলে দেখে নিন, কোন পেজগুলোর ইমপ্রেশন বেশি কিন্তু ক্লিক কম। এরপর যে পোস্টগুলোর ৫ শতাংশেরও কম “click-through rate”, সেগুলো খুঁজে বের করুন। গুগল সার্চ কনসোলে আপনার কীওয়ার্ডগুলো বিশ্লেষণ করে দেখুন, কোন কীওয়ার্ডগুলো থেকে ট্রাফিক আসছে। এখন ঐ ৫ শতাংশেরও কম “click-through rate”…