ইউটিউব ভিডিওর ভিউ বাড়ানোর কৌশল। (নতুনদের জন্য)

Sending
User Review
5 (1 vote)

আমরা সবাই জানি এখন ইউটিউবের ট্রেন্ড। মার্কেটিং জগতে ইউটিউবের জয়জয়কার। আপনিও ইউটিউব ভিডিও তৈরি করতে চাচ্ছেন। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে আপনার কোন এড বাজেট নেই, এমনকি আপনার সোশ্যাল ফলোয়রও নেই। এরকম অবস্থায় আপনি সাবস্ক্রাইবার পাবেন না। যদি আপনি সাবস্ক্রাইবার না পান তাহলে আপনার ভিডিও দেখবে কে?

আজ আমরা জানব কিভাবে ইউটিউব ভিডিওর ভিউ বাড়াতে হয়? – এমনকি যদি আপনার কোন সাবস্ক্রাইবার নাও থাকে।

ইউটিউব ভিডিও টিপ #: যে ভিডিওটি আপনি তৈরি করেছেন সেটাকে ইউটিউবের বাহিরে প্রচার করবেন। ইউটিউবাররা তাদের ভিডিওগুলো প্রচারের জন্য এই পদ্ধতি অনুসরণ করে। জনপ্রিয় ব্লগার/রাইটার যাদের লেখার সাথে আপনার ভিডিওর টপিক মিলে যাবে, তাদেরকে আপনার ভিডিওটি তাদের পোস্টের মধ্যে এমবেড করতে বলবেন। তারা যখন এমবেড করবে, তখন আপনাদের ভিডিওটির ভিউ বাড়তে থাকবে। এর সাথে সাথে ভিডিওটির র‌্যাংকিংও বাড়বে।

ইউটিউব ভিডিও টিপ #: ইউটিউবের প্রতিযোগীতায় টিকে থাকা অনেক কঠিন। আর ভিডিওটি যদি হয় ইংরেজী ভাষায়, ত্হলে র‌্যাংকিং করা আরও কঠিন। ইংরেজির বাদে অন্য ভাষায় র‌্যাংকিং করা তুলনামূলকভাবে সহজ। তাই আপনার ভিডিওটি অন্য ভাষাতেও আপলোড করতে হবে। ভয় পাবেন না!!! আমি আপনাকে অন্য ভাষা শিখতে বলছি না। শুধুমাত্র অন্য ভাষায় সাবটাইটেল যুক্ত করতে হবে। এ কাজটিও এখন বিভিন্ন টুল দিয়ে সহজেই করা যায়।

আমরা জানি ইউটিউব এখন সারা বিশ্বে অনেক জনপ্রিয়। তাই ইংরেজি ভাষার সাথে সাথে যদি অন্য ভাষার মানুষের কথা ভেবে সাবটাইটেল তৈরি করেন, তাহলে কম সময়ে বেশি ভিউ পাবেন।

 ইউটিউব ভিডিও টিপ #: আপনার সাইটের ভিজিটরদের কাছে মার্কেটিং করা। আপনার যদি কোন ওয়েবসাইট থাকে, তাহলে আনার কাছে ঐ সাইটের সাবস্ক্রাইবারদের ইমেইল থাকবে। আপনি ঐ ইমেইলগুলোতে আপনার ইউটিউব ভিডিও মার্কেটিং করবেন। এতে আপনার ভিডিওর ভিউ এবং এনগেজমেন্ট বাড়বে।

আপনি subscribers.com থেকে push notification পাঠিয়ে সহজেই এ কাজটি করতে পারেন।

ইউটিউব ভিডিও টিপ #৪: আপনার সাইটে যদি অনেক সার্চ ট্রফিক থাকে, তাহলে আপনার সাইটের সবচেয়ে জনপ্রিয় পোস্টটি খুঁজে বের করুন। এজন্য গুগল সার্চ কনসোল অথবা গুগল এনালিটিকসের সাহায্য নিতে পারেন।

এখন ঐ পোস্ট সম্পর্কিত আপনার ইউটিউব ভিডিওটি, ঐ পোস্টের মধ্যে এমবেড করে দিন। ফলে ভিডিওিটির ভিউ তো বাড়বেই, সেই সাথে আপনার সাইটে ট্রাফিকদের এনগেজমেন্টও বাড়বে। অর্থাৎ আপনার একটি win-win অবস্থা হবে, একই সাথে ভিডিওর ভিউ বাড়বে এবং সাইটে ট্রাফিক বেশি সময় অবস্থান করবে।

ওপরের পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করে ইউটিউব ভিডিওতে ভিউ এবং ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার বাড়াতে পারবেন। পোস্টটি শেয়ার করতে ভুলবেন না।

Facebook Comments

Related posts

Leave a Comment